প্রচ্ছদ >> প্রযুক্তি

'লাইক' বাণিজ্যের আন্তর্জাতিক কেন্দ্র ঢাকা

ফেসবুক 'লাইক' বলুন আর টুইটার 'ফলোয়ার'_ দুটোর প্রতিই মানুষের আগ্রহে কমতি নেই। কে কত বড় সেলিব্রেটি বা কোন পণ্য কত বেশি জনপ্রিয়, সেসবের বিচারেও আজকাল বিবেচনায় আসে লাইকের সংখ্যা। এই লাইক কিন্তু বেশ সস্তায় বিক্রি হয়।

ফেসবুকের বয়স প্রায় ১০ বছর হতে চলল। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ সাইট এটি। আর এ সাইট ঘিরে বাণিজ্যেরও শেষ নেই। ফেসবুকের সুবিধা শুধু জুকারবার্গ নয়, নিচ্ছে বিশ্বের প্রায় সব বড় প্রতিষ্ঠান। হলিউড, বলিউড তারকারাও এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। মজার বিষয় হচ্ছে ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব এবং অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ সাইটে নিজেদের শক্ত অবস্থান বোঝাতে অনেকে 'ভুয়া লাইকও' কিনছেন। খুব সস্তায় ইন্টারনেটে বিকাচ্ছেও তা। কিন্তু নৈতিকতার প্রশ্নে 'ভুয়া লাইক' কেনাটা প্রতিষ্ঠান বা তারকা সবার ক্ষেত্রেই ক্ষতিকর।

ইতালির নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ এবং ব্লগার আন্দ্রেয়া স্ট্রোপা এবং কার্লা ডি মিশায়েলি হিসাব করে দেখেছেন, ২০১৩ সালে ভুয়া টুইটার 'ফলোয়ার' বিক্রি করে ৪০ থেকে ২৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের মতো আয় করেছে অনেক প্রতিষ্ঠান। ফেসবুকের ক্ষেত্রে এই সংখ্যা ২০০ মিলিয়নের মতো। শুধু লাইকই নয়, টাকার বিনিময়ে ওয়েবসাইট কিংবা ভিডিও-র জন্য ক্লিকও কিনছে অনেক প্রতিষ্ঠান। টাকা দিয়ে লাইক কেনার তালিকায় রয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও। তাদের ফেসবুক পাতায় লাইকের সংখ্যা চার লাখের বেশি। লাইক বাড়াতে এ মন্ত্রণালয় কয়েক লাখ মার্কিন ডলার খরচ করেছে। ২০১৩ সালে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ফেসবুক পাতা সবচেয়ে জনপ্রিয় ছিল কায়রোতে। মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটস প্রেস (এপি) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা হচ্ছে লাইক বা 'ক্লিক বাণিজ্যের' আন্তর্জাতিক কেন্দ্র।

ইউনিক আইটি ওয়ার্ল্ড নামের ঢাকার একটি সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, তিনি তার খদ্দেরের সামাজিক যোগাযোগ পাতা 'লাইক' করার জন্য অন্যদের পয়সা দিয়ে থাকেন। ফলে ফেসবুক, টুইটার বা গুগলের পক্ষে এসব লাইক ভুয়া হিসেবে গণ্য করা বেশ কঠিন। সাইফুল ইসলাম দাবি করেন, যেসব অ্যাকাউন্ট থেকে লাইক বা ক্লিক করা হয়, সেগুলো ভুয়া নয়, আসল।

ফেসবুকের সাম্প্রতিক হিসাবে দেখা গেছে, সাইটটিতে থাকা অনেক পাতাই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ঢাকা শহরে। ফুটবল তারকা লিওনেল মেসির ফেসবুক পাতায় ভক্তের সংখ্যা প্রায় ৫১ মিলিয়ন। এ পাতা সবচেয়ে জনপ্রিয় ঢাকায়। একইভাবে ফেসবুকের নিজস্ব নিরাপত্তা পাতা এবং গুগলের ফেসবুক পাতাও লাইকের বিচারে সবচেয়ে জনপ্রিয় ঢাকায়।

অবশ্য, ফেসবুক বা টুইটারে ব্যাপক জনপ্রিয় অধিকাংশ পাতা 'ভুয়া লাইকে' ভরা এমনটা ভাবার কোনো কারণ নেই। বরং লাইক বাড়ার পেছনে যৌক্তিক এবং বিশ্বাসযোগ্য কারণও থাকে। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, বার্গার কিংয়ের কথা। এই ফাস্ট ফুড চেইনের ফেসবুক পাতা কয়েক সপ্তাহ লাইকের বিচারের সবচেয়ে জনপ্রিয় ছিল পাকিস্তানের করাচিতে। মূলত পাকিস্তানে বার্গার কিং-এর কয়েকটি শাখা চালু হওয়ার পর এমনটা হয়েছিল।

FacebookMySpaceTwitterDiggDeliciousStumbleuponGoogle BookmarksRedditNewsvineTechnoratiLinkedinMixxRSS FeedPinterest
Pin It

কম্পিউটারের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে নিন

প্রযুক্তি-1 |  সোমবার, 06 জানুয়ারী 2014
বিডিলাইভ ডেস্ক:প্রযুক্তি বিষয়ে কে কতটা দক্ষ বা অজ্ঞ, ...
Read More

পুরুষ থেকে নারী হয়ে চাকরি খোয়ালেন ভারতীয় নৌ কর্মকর্তা

প্রযুক্তি-1 |  বুধবার, 11 অক্টোবার 2017
আলফা নিউজ ডেস্ক : কারণ, সাত বছর আগে যখন তিনি চাকরিতে যো...
Read More

বিএফইউজে নির্বাচন: বুলবুল সভাপতি, জলিল সম্পাদক

মুক্তমত-1 |  শনিবার, 21 সেপ্টেম্বর 2013
নিজস্ব প্রতিবেদ: বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বি...
Read More

আত্মবিশ্বাসে মিলবে মুক্তি

লাইফস্টাইল -1 |  সোমবার, 17 সেপ্টেম্বর 2018
উপমা মাহবুব আলফা নিউজ ডেস্ক:আপনি মানুষকে সহায়তা করতে ভ...
Read More

পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান স্থাপন

সম্পাদকীয় |  সোমবার, 11 নভেম্বর 2019
আলফা নিউজ ডেস্ক:পদ্মা সেতুর ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারে ১৫তম ...
Read More

পরিমলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন ধর্ষিত ছাত্রী

সম্পাদকীয় |  বৃহস্পতিবার, 22 আগস্ট 2013
আদালত প্রতিবেদক: শিক্ষক পরিমল জয়ধরের বিরুদ্ধে রুদ্ধদ্বা...
Read More
এই বিভাগের সর্বশেষ আপডেট