প্রচ্ছদ >> সম্পাদকীয়

গ্রন্থমেলায় থাকবে পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা

আলফা নিউজ ডেস্ক: অমর একুশে গ্রন্থমেলা উপলক্ষে নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। সেই সঙ্গে কোনো লেখক, প্রকাশক ও ব্লগার চাইলে তাদের বিশেষ নিরাপত্তা দেয়া হবে বলেও জানান তিনি। আজ বৃহস্পতিবার মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, মেলাপ্রাঙ্গণ ছাড়াও টিএসসি থেকে দোয়েল চত্বর পর্যন্ত পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। মেলার চারপাশে পোশাকধারী পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি সাদা পোশাকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকবে। তিনি বলেন, বইমেলা প্রাঙ্গণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পুলিশের পাশাপাশি বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট এবং সোয়াত টিমের সদস্যরা প্রস্তুত থাকবে। বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকা শতভাগ সিসিটিভির আওতায় থাকবে। এছাড়া টিএসসি থেকে দোয়েল চত্বরে পুরো এলাকাও সিসিটিভির আওতায় থাকবে। অন্যদিকে মেলার ভেতরে এবং বাহিরে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করার জন্য আমরা ইতিমধ্যেই পিডাব্লিউর সঙ্গে কথা বলেছি। বইমেলা প্রাঙ্গণে নয়টি গেট থাকবে উল্লেখ করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, বইমেলার বাংলা একাডেমির অংশে দুইটি প্রবেশ গেট ও একটি বের হওয়ার গেট থাকবে এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে তিনটি প্রবেশ গেট ও তিনটি বের হওয়ার গেইট থাকবে। প্রতিটি গেটেই আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টরের পাশাপাশি নিরাপত্তা তল্লাশি থাকবে। বিশৃঙ্খল পরিবেশ এড়াতে নারী ও পুরুষদের জন্য প্রবেশ পথের আলাদা আলাদা লেন থাকবে বলেও তিনি জানান। খুলনা সংবাদ ডটকম
2019-12-18-09-09-38আলফা নিউজ ডেস্ক:সোমবার তথ্য মন্ত্রণালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, সব আবেদন যাচাই করে সিদ্ধান্ত জানাতে কিছুটা সময় লাগবে। আগামীতে আবারও নিবন্ধনের জন্য দরখাস্ত চাওয়া হবে। মন্ত্রী বলেন, এবার ৩ হাজার ৫৯৭টি দরখাস্ত তথ্য মন্ত্রণালয়ে জমা পড়েছিল। সেগুলো তদন্ত করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। “স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তখন টেলিকম মিনিস্ট্রি,...
     
 
এই বিভাগের সর্বশেষ আপডেট